কাশ্মিরের উপর ভারতের কোন অধিকার নেই || লর্ড কোরবার

কাশ্মির সমস্যাকে জিইয়ে রেখেছে ভারত পাকিস্তান

-অধ্যাপক আব্দুল ওয়াহেদ

লন্ডন: আইনগত ভাবে কাশ্মিরের উপর ভারতের কোন অধিকার নেই, তার পরেও কাশ্মিরকে নিয়ন্ত্রন করছে ভারত, সেখানে প্রতিদিন ঘটছে মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা, কাশ্মিরীদের অধিকার ফিরে পেতে কেউ কথা বলছেনা।

একমাত্র পাকিস্থান এবং তুরস্ক ছাড়া আর কেউ কাশ্মিরের মানবাধিকার লংঘন নিয়ে কথা বলেনা। এমন্তব্য পাকিস্তানী বংশদ্ভোত ব্রিটিশ লর্ড কোরবান হোসেনের। গতকাল ১০ই ডিসেম্বর বিকেলে গ্লোবাল পাকিস্তান এন্ড কাশ্মির সুপ্রিম কাউন্সিল (জি-পি-কে-এস-পি) আয়োজিত আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসের সেমিনারে তিনি এমন্তব্য করেন। তিনি বলেন প্রতিদিনই কাশ্মিরে ভারতীয় আইন শৃঙ্খলা বাহিনী হত্যা ধর্ষনের মতো জঘন্য অপরাধ চালিয়ে যাচ্ছে, তার পরেও কাশ্মিরের ব্যাপারে বিশ্বমানবতা নীরব। জি-পি-কে-এস-পি‘র চেয়ারম্যান রাজা সিকন্দর খানের সঞ্চালনায় ব্রিটিশ পার্লামেন্টের পর্টিকিলো হাউজের বুথরয়েড রুমে আয়োজিত সেমিনারে আলোচক হিসেবে অংশ নেন পাকিস্তানী বংশদ্বোত ব্রিপিশ এমপি আফজাল খান, লেবার দলীয় এই এমপি বলেন বিশ্বব্যাপী প্রতিদিনই ঘটছে মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা।

কাশ্মির, সিরিয়া, ইয়েমেন সহ বিশ্বের আরো বহু জায়গায় ঘটছে মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা। মাননবাধিকার সংগঠন গুলোর উচিত বিশ্বব্যাপী মানবাধিকার বিষয়ে সচেতনতা তৈরী করা। এছাড়া মানবাধিকারে মৌলিক ত্রিশটি বিশষ নিয়ে আলোচনা করেন ইন্টারন্যাশনাল হিউম্যান রাইটের সদস্য মিস ট্রেসি কলম্যান, তিনি মানবাধিকারের মৌলিক বিষয়গুলো তুলে ধরে বলেন বিশ্বব্যাপী অহরহ ঘটছে মানবাধিকার লংঘন, মানুষের অধিকার সম্পর্কে মানবাধিকার সংগঠন গুলোকে সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করতে হবে।

সেমিনারের অন্যতম আলোচক অধ্যাপক আব্দুল ওয়াহিদ বলেন কাশ্মির সমস্যাকে ভারত-পাকিস্থান ইচ্ছে করে জিইয়ে রেখেছে, আন্তরিকতা থাকলে উভয় দেশ এই সমস্যার সমাধান করতে পারে। এব্যাপারে কেউই উদ্যোগী হচ্ছেনা। এছাড়াও আলোচনায় আরো অংশ নেন মোস্তারি লাসারি, সাটনের সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাদিক, তিনি বলেন ভারতীয় সেনাবাহিনী কাশ্মিরে মা-বোনদের ধর্ষন সকরছে যুগ যুগ ধরে, তারপরেও বিশ্বমানবাতা নীরব। সদ্য কাশ্মির ফেরত মোহাম্মদ সাহিদ তার কাশ্মির ভ্রমনের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে কান্না জরিত কণ্টে বলেন কাশ্মিরে হিন্দু পুলিশ ও সেনা সদস্যদের হাতে মুসলিমরাই নির্যাতিত হচ্চেনা, সংখ্যালঘূ বৌদ্ধ এবং অন্যান্য মাইনরিটির লোকজনও নির্যাতনের শিকার। সেমিনারে ভিডিও ফোনে অংশ নেন রাজা জাবেদ. এছাড়াও আলোচনায় অংশ নেন গোলাম মোহাম্মদ শাফি, তাহমিনা রানা, রাজা নজাবত, আজাদ কাশ্মিরের জামাতে ইসলামির নেতা চৌধুরী হাবিবুর রহমান।

সেমিনারে সঞ্চালক বলেন ৭০ বছর যাবত কাশ্মিরিরা নির্যাতিত হয়ে আসছে, ১০৯০ সালের পর থেকে এর মাত্রা বেড়ে যায়। এপর্যন্ত ২লক্ষ ৮০ হাজার নিরপরাধ কাশ্মিরীকে হত্যা করা হয়েছে, এখনও হচ্ছে, ধর্ষন লুটপাটের ঘনটনা নিত্যদিনের ব্যাপার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement