ম্যাচ ফিক্সিং প্রতিরোধে গাভাস্কারের টিপস

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: ভারতের টি-টোয়েন্টি লিগগুলোতে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের ছায়া ক্রিকেটেরই ক্ষতি করছে, তা একবাক্যে মেনে নিয়েছেন দেশটির ব্যাটিং কিংবদন্তি সুনিল গাভাস্কার। একই সঙ্গে এও জানালেন, লোভ থেকে মানুষকে মুক্ত রাখা সম্ভব নয়।

কয়েক দিন আগে তামিলনাড়ু প্রিমিয়ার লিগ এবং কর্নাটক প্রিমিয়ার লিগে একাধিক ম্যাচে ফিক্সিং ও বেটিংয়ের অভিযোগ ওঠে। সেই রেশ না কাটতেই ভারতীয় নারী দলের এক বোলারকে ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব দেয়া হয় বলে খবর বের হয়।

গাভাস্কারের মতে, ফিক্সিং একটি দুরারোগ্য ব্যাধি। আর লোভ এমন একটা জিনিস, যেখানে শিক্ষা, সেমিনার, গাইডেন্স, পরম্পরা কোনো কাজে আসে না। খুব গরিব পরিবার থেকে কেউ উঠে এসে যদি হঠাৎ প্রচুর টাকা দেখে, তবে সে প্রভাবিত হতেই পারে।

তিনি বলেন, সুশিক্ষিত, উচ্চশিক্ষিত এবং এগিয়ে থাকা সমাজেও অপরাধীরা বাস করে। ঠিক তেমনই ক্রিকেটেও দুষ্ট লোকের অভাব নেই। তাই এখানে দুর্নীতি হবে না-এমনটি ভাবা বোকামি।

ম্যাচ ফিক্সিং রোগের প্রতিকার সম্ভব নয় বলে মনে করেন সানি। তবু কিছু টিপস দিয়েছেন ক্রিকেটের প্রথম লিটল মাস্টার। তার ভাষ্যমতে, ক্রিকেটারদের লোভ সংবরণ করতে হবে। অনেক সময় পরিস্থিতি তাদের লোভী বানায়। খেলোয়াড়দের বুঝতে হবে, এখান থেকে বেরোনোর কোনো পথ নেই। ফিক্সারদের ম্যাচ গড়াপেটায় পাতা ফাঁদগুলো থেকে কীভাবে বের হতে হয় তা জানতে হবে তাদের।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement