সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আঞ্চলিক যুদ্ধ !

   :আলাউর রহমান খান শাহিন:

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে Facebook ব্যবহার করে যেমন খুব সহজেই বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে যোগাযোগ সহজ হয়েছে তেমনি অনেকেই আবার এ মাধ্যমে নানা ধরনের ব্যবসা ও করছেন শিক্ষণীয় ও জানার মত অনেক কিছুই আছে এই প্লাটফর্মে ।
আজকাল কিছু কিছু উদ্ভট পোস্ট/ ভিডিও ক্লিপস ইত্যাদি দেখে দেখে আমারা সত্যি অতিষ্ঠ! পৃথিবীতে সবচাইতে বেশি ফেইক ফেইসবুক আইডি সম্ভবত বাংলাদেশে ! অবাক হই যখন দেখি আমাদের দেশে ছোট ছোট বাচ্চাদের নামে ও  ফেইসবুক একাউন্ট্ মা, বাবা ‘রা ব্যবহার করছেন রাজনীতি, সমাজনীতি , অর্থনীতি ইত্যাদি ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা, সমালোচনা,পর্যালোচনা হচ্ছে ।

কপি, পেস্ট করে ও আবার বাহবা পাওয়ার তালে আছেন কেউ কেউ ।

মৃত মানুষের লাশের ছবি থেকে বিকৃত,বিভৎস ছবি আপলোড হচ্ছে হর হামেশাই ।

মৃত মানুষের ছবি দিয়ে “মৃত্যু” সংবাদ দেয়াটা যেন আজকাল রীতি হয়ে গেছে ।

এ সকল সংবাদে ও আবার প্রচুর “লাইক” পাওয়া যায় । সত্যি সেলুকাস কী বিচিত্র এ পৃথিবী !
যে যার ইচ্ছে মত যা খুশি তাই নিয়ে নীতি বাক্য  লিখছেন/বলেছেন ।
প্রশ্ন হচ্ছে যারা এই সব নীতি বাক্য লিখছেন বা অন্য মানুষকে গালি দিচ্ছেন ওনারা’ই পক্ষান্তরে ওনাদেরকে’ই ছোট করছেন।

গত কিছুদিন ধরে যে ভাবে আমাদের “সিলেটিদের” নিয়ে কিছু উম্মাদ গালাগাল করেছে তার পুরো ভিডিও ক্লিপ টা অর্ধেক দেখে বাকী টুকু দেখার রুচিবোধ আমার হয় নি ।
তার পরবর্তীতে আবার আরও অনেকেই খুবই খারাপ ভাষায় গালিগালাজ করে এমনকি জীবন নাশের হুমকি দিয়ে ও ভিডিও ক্লিপস আপলোড করছেন ।

এ যেন রীতিমতো সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আঞ্চলিক যুদ্ধ !
প্রশ্ন হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আজকাল এ সকল “হেইট ক্রাইম ” যারা শুরু  করছেন তাদের বিরুদ্ধে শুধু গালিগালাজ করে’ই ভিডিও আপলোড করলেই সমস্যার সমাধান হবে কী ?
আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে আমাদের সবাইকে কাজ করা উচিত ।

পৃথিবীর যে কোনো দেশেই বসবাস কারি বাংলাদেশীদের বাংলাদেশ হাইকমিশনের মাধ্যমে আজকাল খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা তেমন কোন অসাধ্য কাজ নয় ।

সবার শুভ বুদ্ধির উদয় হোক ।

অলিউররহমানখান শাহিন সংবাদকর্মী ও উপস্থাপক ৷
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement