সীমান্তে গোলাবর্ষন: ভারতীয় কূটনীতিককে তলব করল পাকিস্তান

ব্রিট বাংলা ডেস্ক :: অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে কাশ্মীর সীমান্তে গোলাবর্ষনের প্রতিবাদে ভারতীয় কূটনীতিককে তলব করেছে পাকিস্তান। সোমবার পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় ডেপুটি হাই কমিশনারকে তলব করা হয়।

পাকিস্তান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রে এক্সপ্রেস ট্রিবিউন উর্দূর খবরে বলা হয়, রোববার ভারতীয় বাহিনীর চালানো হামলায় ২ পাকিস্তানি নাগরিক নিহতের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিবাদ জানিয়েছে পাকিস্তান। ভারতীয় ডেপুটি হাই কমিশনার গৌরব আহলুওয়ালিয়াকে তলব করে পাক সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ করা হয়।

পাক পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র ও দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক মহা পরিচালক ড. মুহাম্মাদ ফয়সাল ভারতীয় কূটনীতিককে তলব করেন। এ সময় তিনি তার কাছে রোববার নাকয়াল ও চিরিকোট সেক্টরে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের কারণ জানতে চান এবং আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিবাদ জানান।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, লাইন অব কন্ট্রোলে (এলওসি) ভারতীয় বাহিনীকে নিজস্ব অবস্থানে থাকতে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হয়েছে।

ভারতের বাড়াবাড়ির কারণে কোনো উত্তেজনা সৃষ্টি হলে পাকিস্তান কঠিন পদক্ষেপ নেবে বলেও ভারতীয় ডেপুটি হাই কমিশনারকে হুশিয়ার করা হয়।

প্রসঙ্গত, কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘে উত্তেজনার মধ্যেই সীমান্তে পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। রোববার উভয় দেশই পরস্পরের বিরুদ্ধে অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে সীমান্তে গুলি চালানোর পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে।

পাকিস্তান আন্তঃবাহিনীর জনসংযোগ অধিদফতর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, রোববার ভারতীয় বাহিনী বিনা উসকানিতে নিয়ন্ত্রণরেখার নাকয়াল সেক্টরে মর্টার ট্যাংক থেকে গোলাবর্ষণ করে। এতে এক বৃদ্ধা নারী এবং জিশান আইয়ুব নামে ১৩ বছরের এক কিশোর নিহত হয়েছেন। এছাড়া দুই নারীসহ আরও তিনজনকে আহত অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

এদিকে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলায় মর্টার শেলিং এবং ছোট অস্ত্রের গুলি চালিয়ে চেকপোস্ট ও বিভিন্ন গ্রাম টার্গেট করে টানা দ্বিতীয় দিন হামলা চালিয়েছে পাকিস্তান। এতে ১২ বছরের এক ছেলে সহ ছয়জন আহত হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement