স্থানীয় এমপির কাছে কারী ইন্ডাস্ট্রির স্টাফ সংকট সমাধানের প্রস্তাবসম্বলিত স্মারকলিপি হস্তান্তর

ব্রিটেনে বসবাসরত দক্ষ স্টাফ দিয়ে কারী শিল্পের স্টাফ সংকট সমাধানের আহ্বান জানানো হয়েছে এ লক্ষ্যে বার্মিংহাম থেকে শুরু হওয়া একটি ক্যাম্পেইন গ্রুপের পক্ষ থেকে।

বহুদিন ধরে বসবাস করা আটকে পড়া দক্ষ শ্রমিক কিন্তু কারী শিল্পের দক্ষ কারিগরদের বৈধতা দিয়ে এ শিল্পের স্টাফ সংকট সমাধান করার পক্ষে জোরালো মতামত তুলে ধরেন। উল্লেখ্য ব্রিটেনে প্রায় বারো হাজার রেস্টুরেন্ট বছরে যুক্তরাজ্যের অর্থনীতিতে প্রায় পাঁচ বিলিয়ন পাউন্ডের যোগান দিচ্ছে। কিন্তু এই শিল্পে সম্প্রতি স্টাফ সংকটের কারণে স্থবিরতা ও কোথাও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে রেস্টুরেন্ট। এদিকে বিভিন্নভাবে যুক্তরাজ্যে এসে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক মানুষ অভারস্টেয়ার আছেন বা বৈধ হওয়ার আবেদন ঝুলন্ত অবস্থায় আছে।

এদের অনেকেই রেস্টুরেন্ট ব্যবসা বা কাজে জড়িত ছিলেন বা এ পেশায় দক্ষতা রয়েছে। তাই বহুদিন ধরে বসবাস করা আটকে পড়া দক্ষ শ্রমিকদের বৈধ করে স্টাফ সংকট সমাধানের লক্ষে পরিচালিত ক্যাম্পেইন গ্রুপের মতে কারী শিল্পের স্টাফ সংকট সমাধানে নতুন করে লোক আনার চেয়ে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত বহুদিন ধরে বসবাস করা আটকে পড়া দক্ষ শ্রমিকদের বৈধতা দান করে এ শিল্পে কাজ করার সুযোগ করে দিয়ে একদিকে যেমন এ শিল্প রক্ষা পাবে বিপর্যয় থেকে তেমনি হাজার হাজার বহুদিন ধরে বসবাস করা আটকে পড়া দক্ষ শ্রমিক যারা বিভিন্ন কারণে বা কাজ করতে না পারার কারণে মানবেতর জীবন যাপন করছে তারা সুস্থ, স্বাভাবিক জীবন যাপনে ফিরে আসতে পারবে। এবং এটি একটি মানবিক উদ্যোগ হিসেবেও বিবেচিত হবে এবং ব্রিটেনের অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখা কারী শিল্পের সংকটও দূরীভূত হবে।

গত ১৪ আগস্ট বার্মিংহামের স্থানীয় এমপি জেস ফিলিপ এর নিকট এ লক্ষ্যে স্থানীয় কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব আশিক মিয়ার পক্ষ থেকে একটি স্মারকলিপি হস্তান্তর করা হয়েছে। স্মারকলিপিতে কারী শিল্পের সংকট সমাধানে বহুদিন ধরে বসবাস করা আটকে পড়া দক্ষ শ্রমিক বৈধ করে কাজ করার সুযোগ প্রদান সম্বলিত প্রস্তাবের সপক্ষে বিভিন্ন যুক্তি তুলে ধরে তা পার্লামেন্টে উপস্থাপনের জন্য এমপির প্রতি অনুরোধ জানানো হয়। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- মাহবুব আলম চৌধুরী মাখন, তারেক চৌধুরী, মোহাম্মদ মারুফ, রিয়াদ আহাদ, এম এ মুনতাকিম, জুম্মা আহেমেদ লিটু, আমিরুল ইসলাম বেলাল, আবু হায়দার চৌধুরী সুইট, জয়নাল ইসলাম, সেবুল মিয়া, রাজু আহমেদ, মনসুর আলম প্রমুখ।

ACB#17

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement