স্পট লাইট প্রজেক্ট দেখতে নরওয়ের মন্ত্রী পপলারে

আহাদ চৌধুরী বাবু:নরওয়ের ইমিগ্রেশন অ্যান্ড ইন্টিগ্রেশন মন্ত্রী মিসেস সিলভি লস্টহাউগ যুব ও তরুণদের উগ্রবাদ  এবং তারন্যের শক্তির সূজনশীল কৰ্মকাণ্ডে অংশ গ্রহন  নিয়ে টাওয়ার হ্যামলেটস এর পপলার হারকার কমিউনিটি প্রজেক্ট দেখতে  মঙ্গলবার পপলারের স্পটলাইট পরিদর্শন করেছেন । 

তিনি বলেন আমি  শুনেছি যে স্থানীয় এবং জাতীয় সংস্থার সাথে কীভাবে স্পটলাইটের সহযোগিতামূলক কাজ তরুণদের অনুপ্রাণিত করে এবংসমর্ন করে, এবং চরমপন্থা প্রতিরোধে সাহায্য করে।

সেতু বন্ধন হিসাবে কাজ করছে।তাই আগ্রহী হয়ে আজকের এই সফর৷পপলার হারকার কমিউনিটি ও নেইবারহুড ডাইরেক্টার বাবু ভট্টাচার্য মন্ত্রিকে স্বাগত জানান ৷

বাবু ভট্টাচার্য,স্পট লাইটের বিভিন্ন প্রজেক্ট এবং কমিউনিটি সেবার সাথে এর সংপৃক্ততার বিষয় তুলে ধরেন৷

“টাওয়ার হ্যামলেটস-এ পাঁচটি সাইট জুড়ে স্পটলাইট কাজ করে, প্রতি বছর ২৫০০ জন অল্পবয়স্কের চাহিদার উপর সরাসরি লক্ষ্যবস্তু করা বিভিন্ন প্রোগ্রাম অফার করে।

মূল উদ্দেশ্য হলো  সৃজনশীলতা এবং খেলাধুলার উপর আগ্রহ সৃষ্টির জন্য স্পট লাইট ভবনের অভ্যন্তরে চিত্র গ্যালারী এবং আইএমডি ডান্স ফ্লোর একটি অলিম্পিক-স্পট বক্সিং রিং, নাচ মেঝে এবং রেকর্ডিং এবং অডিও ভিজ্যুয়াল সরঞ্জাম আধুনিক সংযোজন তরুণদের আকাঙ্খার মাত্রাকে আগ্রহের সৃষ্টির জন্য   উৎসাহিত করার মাধ্যমে, তাদের  কেরিয়ারের আগ্রহ সৃষ্টি হতে পারে, আমরা এটিকে সমাজবিরোধী আচরণ, অপরাধ এবং এমনকি উগ্রবাদ সহ তরুণদের সম্ভাব্য  সমস্যাগুলির বিরুদ্ধে লড়াইয়েও সাহায্য করতে পারে ৷

যাহা স্পট লাইট ইতিমধ্যে ভরসার স্থান হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে৷

“এই পাশাপাশি, স্পটলাইট অল্প বয়স্ক ব্যক্তিদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য কর্মসূচীকে পিয়ার করার জন্য ব্যক্তিগত সহায়তা পরিকল্পনা এবং পথের একটি পরিসর প্রদান করে এবং অতিরিক্ত সহায়তা প্রয়োজন। আমরা যেমন NSPCC সহ অংশীদারদের সাথে কাজ করি।

“স্পটলাইট টাওয়ার হ্যামলেটস পুলিশ, স্থানীয় এসএনটি এবং এএসবি টিমের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করে। এবং স্কুল, যুব কর্মী এবং কমিউনিটির শিল্প সেবা, যুব-নেতৃত্বাধীন কর্মসূচির এই অনন্য সমন্বয় এবং অংশীদারদের সহযোগিতায় উভয় পক্ষ  তাদের মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্য এবং সৃজনশীলতা অন্বেষণকরার জন্য তরুণদের নিরাপদ পরিবেশ প্রদান করে, এবং এর মাধ্যমে বিচ্ছিন্নতা ও উগ্রবাদ থেকে দূরে রাখছে।

এসময় পপলার হারকার কর্মকৰ্তা গনমাধ্যম কর্মী ও টাওয়ার হ্যামলেটস পুলিশের চিফ ইন্সপেক্টর সেই ফার ও নেবারহুডস  মার্টিন কিবি এবং সের্গেইন্ট লুস মেকার আলোচনায় যোগ দেন।

নরওয়ের মন্ত্রী বাংলা মিডিয়া কে বলেন আমি অভিভুত ৷ তরুন ও যুব সম্প্রদায়ের জন্য এটিএকটি মাইল ফলক এবং রোল মডেল৷ পরে মন্ত্রি এক চাচক্ৰে মিলিত হন ৷

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Advertisement