যুক্তরাজ্য

করোনার বিস্তার ঠেকাতে ইংল্যান্ডের পাবগুলো পুনরায় বন্ধে পরামর্শ

ব্রিটবাংলা ডেস্ক : করোনায় বৃটেনে প্রতিদিনের মৃত্যুর সংখ্যা এখনো ১শ’র নীচে নামেনি। অন্যদিকে প্রতিদিন বাড়ছে নতুন করে সংক্রমিতের সংখ্যা। এই অবস্থায় শনিবার লকডাউন শিথিলের পূর্ব ঘোষণা থেকে সরে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এ কারণে তিনি শুক্রবার টেন ডাউনিং স্ট্রীটে দু:খ প্রকাশও করেন। এদিকে শনিবার স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, আগামী সেপ্টেম্বরে করোনামুক্ত হয়ে নিরাপদে স্কুল পুনরায় চালু করতে চাইলে এখন থেকেই ইংল্যান্ডের সব পাবসহ অন্যান্য স্বল্প প্রয়োজনীয় কার্যক্রম পুনরায় বন্ধ করতে হবে।
করোনায় বৃটেনে গত চব্বিশ ঘন্টায় আরো ৭৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বৃটেনে করোনায় সর্বমোট মৃতের সংখ্যা ৪৬ হাজার ১শ ৯৩ জনে গিয়ে পৌঁছেছে। আর গত চব্বিশ ঘন্টায় নতুন করে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে ৭শ ৭১ জন। সংক্রমন ঠেকাতে এখন থেকেই পাবসহ অন্যান্য কার্যক্রম পুনরায় বন্ধের পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। না হলে আগামী সেপ্টেম্বরে স্কুল পুনরায় নিরাপদে খোলা ঝুঁকিপূর্ন হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন তারা। যদিও করোনা সংক্রমন বৃদ্ধির আশঙ্কায়, এরিমধ্যে শনিবার থেকে ক্যাসিনো, বোলিং, ৩০ জনের উপস্থিতিতে বিয়ে-স্বাদী পার্টি এবং বিউটি সেলুন পুনরায় চালুর সিদ্ধান্ত দু’ সপ্তাহের জন্যে স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।
এদিকে লকডাউন শিথিলের অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ১লা অগাস্ট থেকে সরকারী-বেসরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মস্থলে ফেরার আহ্বান বহাল রয়েছে। অন্যদিকে অগাস্ট থেকে সরকারের ফারলো অর্থাৎ জব রিটেনশন স্কীমে পরিবর্তন শুরু হবে। অগাস্ট থেকে ফারলো’তে থাকা স্টাফদের ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স এবং পেনসন কন্ট্রিবিউট করতে হবে চাকুরী দাতা কোম্পানীগুলোকে। আর সেপ্টেম্বরে পেনসনের সঙ্গে ফারলোর ৮০ শতাংশ ভেতনের মধ্যে ১০ শতাংশ পরিশোধ করতে হবে চাকুরীদাতা কোম্পানীগুলোকে। এ নিয়েও বেশ শঙ্কার মধ্যে রয়েছেন চাকুরীদা কোম্পানীগুলো। অর্থাৎ ফারলোর ৭০ শতাংশ পরিশোধ করবে সরকার। ৫ শতাংশ পেনসন কন্ট্রিবিউশনসহ বাকী ১০ শতাংশ পরিশোধ করতে হবে চাকুলীদাতা কোম্পানীকে। আর অক্টোবরে ফারলোর ২০ শতাংশ এবং পেনসন কন্ট্রিবিউশনসহ ২৫ শতাংশ পরিশোধ করতে হবে চাকুরীদাতাকে। আর সরকার পরিশোধ করবে ৬০ শতাংশ।

Related Articles

Back to top button