সুনামগঞ্জে ছুরিকাঘাতে আ.লীগ নেতা খুন

Posted on by

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জয়নাল আহমেদ (৩২) ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোরে এলাকার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশের সড়ক থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। তাঁর শরীরে ছুরিকাঘাতের একাধিক চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ধলাইপাড় গ্রামের চারজনকে আটক করেছে।

আটক ব্যক্তিরা হলেন ধলাইপাড় গ্রামের সেলিম আহমদ (৩৫), শাহেন শাহ (৩২), সাগর আহমদ (৩২) ও রবি আহমদ (৩০)। তাঁদের মধ্যে রবি জয়নাল আহমদের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের কর্মচারী।

পুলিশ জানিয়েছে, আটক ব্যক্তিরা জয়নালকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আটক ব্যক্তিদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, গতকাল সোমবার রাত ১১টার দিকে জয়নালকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। রাতে জয়নাল ও আটক চারজন ধলাইপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশের সড়কে একসঙ্গে ছিলেন। জয়নালের সঙ্গে সেলিমের কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে জয়নালকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করেন সেলিম। জয়নাল তখন মাটিতে লুটিয়ে পড়লে অন্যরা সেখান থেকে পালিয়ে যান। সারা রাত তাঁর লাশ সেখানেই পড়ে ছিল।

জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য আবদুল মোতালেব জানান, জয়নালের বাড়ি সদর উপজেলার জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামে। তিনি জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। মঙ্গলবার সকাল ছয়টার দিকে উপজেলার মঙ্গলকাটা বাজারের ধলাইপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পশ্চিম পাশের রাস্তায় তাঁর রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। জয়নাল আহমেদের দুই ছেলে ও এক মেয়ে আছে।

সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল্লাহ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জয়নালের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x